সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যাকান্ডের ঘটনায় সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

0

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যাকান্ডের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক সুলতান মাহমুদ ও জেলা কমিটি।

জানা গেছে, ইলিয়াস হোসেন (৪৫) বন্দরের জিওধারা এলাকার মজিবর মিয়ার ছেলে। সে দৈনিক বিজয় পত্রিকার প্রতিনিধি ও সময়ের চিন্তা অনলাইন ও টিভির ফটো সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। মাদকসেবীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে এই সাংবাদিক রবিবার রাতে মারাত্মক ভাবে আহত হয় গুরুত্বর আহতবস্থায় তাকে স্থানীয় ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নেয়ার সময় তার মৃত্যু ঘটে।

এ ঘটনায় জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির ও নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ সহ সদস্যরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ও বিচারকের নিকট জোরদাবী  অবিলম্বে খুনীদের শাস্তির রায় করে ফাঁসি দেয়া হউক।

জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সাংবাদিক সুলতান মাহমুদ বলেন, মাদক ব্যবসায়ীরা দেশ ও জাতির শত্রু এই অপরাধীদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় একজন প্রতিবাদী সাংবাদিককে অপরাধীরা ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে এমন নির্মমভাবে হত্যা করবে তা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। সাংবাদিকরা জনগন ও দেশের জন্য কাজ করে কিন্তু সাংবাদিকদের জীবনের আজ কোন মূল্য নেই। তার পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা জানাই এবং তার খুনের বিচার করাতে সব ধরনের সহয়তা করব। আমি বলব সকল সাংবাদিকরা যদি ঐক্যবদ্ধ হয়, তাহলে সকল অপশক্তি ও অবক্ষয় রোধ করা সম্ভব। তাই সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে ইলিয়াস হত্যার প্রতিবাদ করা জরুরী প্রয়োজন। আমরা সাংবাদিকরা যদি সম্মিলিত ভাবে প্রতিবাদ না করি এবং রুখে না দাড়াই তাহলে ভবিষ্যতে আমাদের অনেকের উপরই এর প্রভাব পড়তে পারে।

অতএব এখনই সময় সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে অন্যায়,অপরাধের ও অপরাধীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর।

সাংবাদিক সুলতান মাহমুদ আরও বর্তমানে সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীণতায় ভুগছে। বিভিন্ন সময়ই তথ্য সংগ্রহ এবং সংবাদ প্রকাশের জের ধরে সন্ত্রাসীদের হাতে অনেক সাংবাদিক হামলা,মামলা নিপীড়নসহ প্রাণ হারানোর শিকার হচ্ছেন যার বাস্তব প্রমাণ সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জে কর্মরত অনেক পেশাদার সংবাদকর্মী। ঐ সকল আপরাধীদের উপযুক্ত শাস্তি না হওয়ার কারণে ধারাবাহিকতার শিকারেই আজ সাংবাদিক ইলিয়াস হত্যাকান্ড ঘটেছে। নিহত সাংবাদিক ইলিয়াসের এই নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনায় আমরা সকলেই মর্মাহত শোকাহত। শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা সহ দোয়া থাকবে। যেকোন প্রয়োজনে পরিবারের পাশে থাকব ইনশাল্লাহ।